Aaradhya Bachchan: ঐশ্বর্য-অভিষেক কন্যা আরাধ্যার স্কুলের মাইনে শুনলে চমকে যাবেন, মাস গেলে দিতে হয় বিশাল অংকের মোটা টাকা!

নিজেদের মেয়েকে নিয়ে অত্যন্ত যত্নশীল ঐশ্বর্য-অভিষেক! স্কুলের সমস্ত দিক থেকে শুরু করে অন্যান্য বিষয় সবকিছুই একা হাতেই সামলান ঐশ্বর্য.. বচ্চন পরিবারের এই খুদে সদস্যের সম্পর্কে জানলে আপনারাও অবাক হবেন!

0
126
Aaradhya Bachchan: ঐশ্বর্য-অভিষেক কন্যা আরাধ্যার স্কুলের মাইনে শুনলে চমকে যাবেন, মাস গেলে দিতে হয় বিশাল অংকের মোটা টাকা!
Aaradhya Bachchan: ঐশ্বর্য-অভিষেক কন্যা আরাধ্যার স্কুলের মাইনে শুনলে চমকে যাবেন, মাস গেলে দিতে হয় বিশাল অংকের মোটা টাকা!

বলিউড ইন্ডাস্ট্রির অন্যতম পাওয়ার কাপলদের তালিকায় রয়েছেন অভিষেক বচ্চন এবং ঐশ্বর্য রাই বচ্চন। তারা যে শুধুমাত্র একজন ভালো অভিনেতাই তা নয়, তাদের সঙ্গে জড়িয়ে রয়েছে বচ্চন পরিবারের নাম। যদিও আমাদের আজকের এই প্রতিবেদনের আলোচ্য বিষয় ঐশ্বর্য-অভিষেক নয়, বরং তাদের একমাত্র কন্যা আরাধ্যা বচ্চন। বিগত বেশ কিছু সময় ধরেই সোশ্যাল মিডিয়ায় তাদের একমাত্র কন্যা আরাধ্যার নানান রকম ছবি এবং ভিডিও ঘুরে বেড়াচ্ছে এবং সেখান থেকে নানান জিনিসও জানতে পারা যাচ্ছে। যেমন সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে উঠেছে আরাধ্যার স্কুলের বেতনের পরিমাণ। জানেন কি মেয়ের স্কুলের জন্য ঐশ্বর্য-অভিষেককে মাস গেলে কত টাকা খরচ করতে হয়?

বলিউডে সেলেবকিডরা অধিকাংশ সময়ই বেছে নিয়ে থাকেন ধিরুভাই আম্বানি আন্তর্জাতিক স্কুলকে। আরাধ্যা বচ্চন ও তার ব্যতিক্রম নন। এই স্কুলের ছাত্র-ছাত্রীদের মধ্যে শাহরুখের ছেলে মেয়ে, করিশ্মা কাপুর, করিনা কাপুর, সইফ আলি খান, শ্রীদেবী, অধিকাংশ স্টারেদের ছেলেমেয়েরাই রয়েছেন। সূত্রের খবর অনুযায়ী,এই স্কুলে মাসিক বেতন ১,৭০ লাখ টাকা। তবে শুধুমাত্র যে মাসিক মোটা অঙ্কের বেতন নেওয়া হচ্ছে সেটা কিন্তু নয়। ছাত্র-ছাত্রীদের উদ্দেশ্যে এই স্কুলে নানান রকমের সুবিধা ও প্রদান করা হয়। ছাত্র-ছাত্রীরা যাতে সব বিষয় পারদর্শী হয়ে ওঠে এবং সঠিকভাবে এগিয়ে যেতে পারে সেই দিকেও যথেষ্ট খেয়াল রাখেন স্কুল কর্তৃপক্ষ।

যেহেতু এই স্কুল থেকে পড়াশোনা করার পরে বহু শিক্ষার্থীরাই বাইরে চলে যান তাই একটু বিশেষভাবেই এখানে ছাত্র-ছাত্রীদের শিক্ষা প্রদান করা হয়ে থাকে।মুম্বই নগরীর অধিকাংশ প্রথমসারির তারকাদের ছেলে মেয়েরা এই স্কুল থেকে পাশ করেছে।একাধিকবার এই স্কুলের অন্দরমহল থেকে সেলেবকিডদের ছবি ভাইরাল হতে দেখা যায়। আরাধ্যাও সেই তালিকা থেকে বাদ পড়েননি কখনও।কখনও তার নাচের ছবি, কখনও আবার তার গানের ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় জায়গা করে নিয়েছে। উল্লেখ্য,বচ্চন পরিবারের সবচেয়ে খুদে সদস্য আরাধ্যা।

বয়স সবে ১১। তবে নিয়মিত ট্রোলের শিকার হতে হয় এই খুদেকে। সোশ্যাল মিডিয়ায় ঐশ্বর্য রাই বচ্চন আর অভিষেক বচ্চনের মেয়ের ভিডিয়ো আসা মানেই যেন ট্রোলারদের ভুলভাল মন্তব্য করার কাজ চালু। সম্প্রতি কিছুদিন আগেই মা ঐশ্বর্য রায়ের হাত ধরে এয়ারপোর্ট থেকে বেরিয়ে আসছিল আরাধ্যা। সেই ভিডিওটি ভাইরাল হতেও ব্যাপক সমালোচনার মুখোমুখি হতে হয়েছিল তাকে। ভাইরাল সেই ভিডিওর কমেন্ট বক্সে জনৈকের মন্তব্য, ‘বাচ্চাটাকে দেখলেই আমার কেমন যেন মনে হয় ওর মধ্যে আত্মবিশ্বাসের অভাব আছে। যা স্টার কিডডের মধ্যে সাধারণত হয় না। আমার মনে হয় এভাবে ঐশ্বর্য সবসময় ওকে আগলে রাখার ফলে এমনটাই হয়েছে। কেমন নেচে নেচে হাঁটছে’!

তবে সমালোচনা যতই হোক না কেন মেয়ের সমস্ত কাজ এবং পড়াশোনা নিজের হাতেই যত্নে করতে ভালোবাসেন ঐশ্বর্য। মা হিসেবে তাতে কোন রকমের খামতি রাখেন না তিনি। বলা হয় সন্তান যতই বড় হয়ে যাক না কেন বাবা মায়ের কাছে সে সব সময় ছোটই থাকে। তাই সমালোচনা আসলেও ঐশ্বর্য যে কোন ভুল কাজ করেননি মেয়েকে আগলে রেখে তা বলাই যায়। এই প্রসঙ্গে আপনার কি মতামত তা আমাদের কমেন্ট বক্সে অবশ্যই জানাতে ভুলবেন না।