Royal Enfield Hunter 350: পুজোর মরশুমে মাত্র ৫০১৫ টাকায় বাড়ি আনুন রয়্যাল এনফিল্ডের এই বাইক, কিভাবে জেনে নিন বিস্তারিত

Royal Enfield Hunter 350: কি কি বিশেষত্ব রয়েছে এই বাইকে? কত টাকাতেই পাই বাইকটি বাড়িতে আনতে পারবেন আগ্রহীরা?

0
122
Royal Enfield Hunter 350: পুজোর মরশুমে মাত্র ৫০১৫ টাকায় বাড়ি আনুন রয়্যাল এনফিল্ডের এই বাইক, কিভাবে জেনে নিন বিস্তারিত
Royal Enfield Hunter 350: পুজোর মরশুমে মাত্র ৫০১৫ টাকায় বাড়ি আনুন রয়্যাল এনফিল্ডের এই বাইক, কিভাবে জেনে নিন বিস্তারিত

পুজোর মরসুমে স্বাভাবিকভাবেই বহু মানুষ কিন্তু টু হুইলার অথবা ফোর হুইলার কেনার কথা চিন্তাভাবনা করছেন। যদি আপনিও এই সমস্ত আগ্রহী মানুষদের তালিকায় থেকে থাকেন তাহলে আমাদের আজকের এই প্রতিবেদনটি ভুলেও মিস করবেন না.. এই প্রতিবেদনে রয়্যাল এনফিল্ড এর একটি নতুন মডেল নিয়ে আমরা আলোচনা করতে চলেছি যা সকলের দারুন পছন্দ হবে এ কথা বলতে পারি। এই বাইকটির বিভিন্ন বৈশিষ্ট্য কিন্তু নিঃসন্দেহে আপনাকে অবাক করবে আর সাথে সাথে দারুন উৎসাহিত করেও তুলবে।

রয়াল এনফিল্ড এর নতুন মডেলে লিটারে 36.2 kmpl মাইলেজ পাওয়া যায়। পাশাপাশি এতে,বাইকের ফ্রন্ট এবং রিয়র দুটি চাকাতেই ডিস্ক ব্রেক দেওয়া হয়েছে। এই নতুন মডেলটিতে রয়েছে 400 সিসির বেশি পাওয়ার ফুল ইঞ্জিন,সেমি-ডিজিটাল ইন্সট্রুমেন্ট ক্লাস্টার এবং 349.34 cc এর bs6-2.0 ইঞ্জিন। আগ্রহী পাঠক বন্ধুদের সুবিধার্থে জানিয়ে রাখি,এই ইঞ্জিন 20.4 PS এর হাই-মাইলেজ দিতে সক্ষম। শুধু তাই নয়, 27 Nm পিক টর্ক জেনারেটে সক্ষম। বাইকের ওজন 177 kg এর। শুধু তাই নয়, রয়েছে 13 লিটারের বড় ফুয়েল ট্যাঙ্ক। Royal Enfield এর Hunter 350 ১১৪ কিমি/ঘন্টা সর্বোচ্চ গতিতে ছুটতে পারে। এছাড়াও এই বাইকে আরো বেশ কিছু স্পেসিফিকেশন পাবেন আপনারা।

আধুনিক অনেক সুবিধাই এতে যোগ করা হয়েছে। যার মধ্যে রয়েছে স্মার্টফোন কানেকটিভিটি, টার্ন-বাই-টার্ন নেভিগেশন,ইউএসবি পোর্ট, অডো মিটার, ফুয়েল গ্যাজ, মেইটেনেন্স ইন্ডিকেটর এবং ট্রিপার পডের অপশন। এবার আসুন রয়াল এনফিল্ড এই নতুন মডেলের বাইকটির দাম সম্পর্কেও কিছুটা ধারণা তৈরি করে নেওয়া যাক।Royal Enfield Hunter 350 এক্স শোরুম দাম 1.50 লাখ টাকা। যদি কারুর নগদে এটি কিনতে সমস্যা থাকে সেক্ষেত্রে মাত্র 17000 টাকা ডাউন পেমেন্ট দিয়ে এই বাইক কিনতে পারবেন। নুন্যতম তিন বছরের জন্যে লোন পাবেন। 9.7 শতাংশ সুদে এই লোন দেওয়া হবে। সেই মতো প্রতি মাসে 5015 টাকা ইএমআই হিসাবে পড়বে। প্রসঙ্গত ভারতীয় বাজারে এই বাইকটি কবে লঞ্চ করা হবে সেই বিষয়ে এখনো কিছু জানা যায়নি। তবে বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন চলতি বছরের শেষের দিক কথার ডিসেম্বর মাস নাগাদ এই মডেলটি লঞ্চ হতে পারে।