কিভাবে নিজের প্রেমিকা বা স্ত্রীকে খুশি রাখবেন? জেনে নিন এই বিশেষ কয়েকটি কৌশল যা কাজে লাগবে সকলেরই!

এটি সম্পর্ক টিকিয়ে রাখতে গেলে অবশ্যই কিন্তু কিছু দিক খেয়াল রাখতে হয়.. এই প্রতিবেদনে আমরা আলোচনা করব স্ত্রী অথবা প্রেমিকাকে খুশি রাখার কিছু বিশেষ উপায়!

0
129
কিভাবে নিজের প্রেমিকা বা স্ত্রীকে খুশি রাখবেন? জেনে নিন এই বিশেষ কয়েকটি কৌশল যা কাজে লাগবে সকলেরই!
কিভাবে নিজের প্রেমিকা বা স্ত্রীকে খুশি রাখবেন? জেনে নিন এই বিশেষ কয়েকটি কৌশল যা কাজে লাগবে সকলেরই!

প্রেমিক-প্রেমিকা অথবা স্বামী-স্ত্রীর উভয় সম্পর্কেই কিন্তু একে অপরের প্রতি যত্নশীল হওয়াটা ভীষণ প্রয়োজন। কারণ যত্ন এবং ভালোবাসা না থাকলে সেই সম্পর্ক টিকিয়ে রাখা অত্যন্ত মুশকিল হয়ে থাকে। আপনি বিবাহিত হন বা অবিবাহিত স্ত্রী অথবা প্রেমিকাকে কিন্তু খুশি রাখাটা আপনার কর্তব্য। সুখী সংসার পেতে চাইলে এই বিষয়টার উপর আপনাকে অবশ্যই খেয়াল রাখতেই হবে। কথাতেই রয়েছে,‘ সংসার সুখের হয় রমনীর গুনে’। এবার সেই রমণী যদি খুশি না থাকে তাহলে সংসার সুখের হবে কি করে? চলুন তাহলে আর সময় নষ্ট না করে জেনে নেওয়া যাক স্ত্রী অথবা প্রেমিকাকে খুশি রাখার বিশেষ কিছু উপায়।

কিভাবে নিজের প্রেমিকা বা স্ত্রীকে খুশি রাখবেন? জেনে নিন এই বিশেষ কয়েকটি কৌশল যা কাজে লাগবে সকলেরই!
স্ত্রীকে খুশি রাখার ৯ উপায়

8ফুল অথবা বিশেষ কোন উপহার দিন:

বিশেষ দিনগুলোতে ফুল অথবা পছন্দের উপহার কিন্তু সকলেই আশা করে থাকে। তাই আপনাদের স্পেশাল ডে উপলক্ষে স্ত্রী অথবা প্রেমিকাকে কিন্তু ফুল অথবা তার পছন্দমত উপহার আপনারা দিতে পারেন। মাঝে মাঝে সারপ্রাইজ প্ল্যান করে তাকে চমকে দিলেও মন্দ হয় না ‌। এতে আপনার স্ত্রী মনে করবে যে আপনি তাকে এবং তার পছন্দকে গুরুত্ব দিচ্ছেন।

আরও পড়ুন- সহজেই প্রেমিকার মন জয় করতে এবং ঘনিষ্ঠ হতে চাইলে ট্রাই করে দেখুন এই বিশেষ কয়েকটি উপায়, ১০০% ফলাফল পাবেন

7সমানভাবে গুরুত্ব দিন:

স্ত্রীর উপস্থিতিতে কখনও তৃতীয় ব্যক্তিকে বেশি গুরুত্ব দেবেন না। খুব চেনা পরিচিত বা কাছের কেউ থাকলেও চেষ্টা করুন দুজনকেই সমানভাবে গুরুত্ব দেওয়ার যাতে কারোরই খারাপ বোধ না হয়।। এই ছোটখাট ব্যাপারগুলো কিন্তু একটা সম্পর্ক টিকিয়ে রাখতে গেলে ভীষণ রকম খেয়াল রাখা জরুরি রয়েছে।

6যতটা সম্ভব কাজে সহায়তা করুন:

ছুটির দিনগুলোতে বা অবসর সময় চেষ্টা করুন স্ত্রীর কাজে একটু সাহায্য করে দেওয়ার। যদি আপনার স্ত্রী গৃহবধূ হয়ে থাকে অথবা কর্মরতাও হয়ে থাকেন সে কিন্তু এ বিষয়টা দারুন পছন্দ করবে। এতে স্ত্রী মনে করবে যে আপনি তাকে যথেষ্ট সহযোগিতা করতে এবং সময় দিতে চাইছেন।

5তুলনা করবেন না:

কখনোই কিন্তু স্ত্রীকে অন্য কারো সঙ্গে বা অন্য কোন মহিলার সঙ্গে তুলনা করবেন না। একে অপরের সঙ্গে তুলনা করলে কেউই খুব একটা পছন্দ করেনা। তাই এই কাজটি কিন্তু ভুল করেও করবেন না। এতে আপনার প্রতি স্ত্রীর বিশ্বাস নষ্ট হয়ে যেতে পারে।

4স্ত্রীর প্রিয়জনদের নিয়ে সমালোচনা করবেন না:

কোন মানুষই তার প্রিয়জনদের নিয়ে কোন রকম সমালোচনা শুনতে পছন্দ করে না।। আপনার স্ত্রীও কিন্তু তার ব্যতিক্রম নয়। তাই আপনার স্ত্রী বাড়ির লোক বা তার কাছের মানুষ অথবা প্রিয়জনদের নিয়ে অকারণে কোনো রকমের সমালোচনা করবেন না। এতে আপনার স্ত্রী মনে আঘাত পেতে পারে এবং যা আপনাদের সম্পর্কে ব্যাপক রকমের প্রভাব ফেলবে।

আরও পড়ুন- আপনিও কি নিজের সম্পর্ক নিয়ে চিন্তায় রয়েছেন? তাহলে জেনে নিন সম্পর্ক ভালো রাখার সেরা কয়েকটি উপায়

3মিথ্যা কথা বলা থেকে বিরত থাকুন:

সম্পর্কে সততা এবং বিশ্বাস বজায় রাখা খুবই জরুরী। তাই সব সময় সত্যি কথা বলতে শিখুন এবং স্ত্রী অথবা গৃহকত্রীর কাছে কখনো মিথ্যে বলবেন না। তাহলে আপনাদের দুজনের মধ্যেকার বোঝাপড়া এবং বিশ্বাস নষ্ট হয়ে যাবে এবং আপনাদের সম্পর্ক আর কখনোই গভীরতর জায়গায় অবস্থান করবে না। উল্টে আপনার স্ত্রী যদি খুশি না থাকে তাহলে সংসারে চলে আসবে হাজারো অশান্তি এবং সমস্যা।

2তার সৌন্দর্যের প্রশংসা করুন:

নিজের সম্পর্কে প্রশংসা পেতে সবাই পছন্দ করে। আপনার স্ত্রী কোন বিশেষভাবে সাজলে অথবা কোন নতুন শাড়ি পরলে তার প্রশংসা করতে শিখুন। এই প্রশংসা ব্যাপারটি তে কিন্তু মেয়েরা খুব সহজেই আপ্লুত হয়ে পরে।

1মনোযোগ দিয়ে কথা শুনুন:

সংসার থেকে শুরু করে যে কোন আলোচনার ক্ষেত্রেই আপনি যদি আপনার স্ত্রীর কথা মনোযোগ দিয়ে শোনেন তবে কিন্তু সে অত্যন্ত খুশি হবে। কারণ সে মনে করবে যে আপনি তার কথার অত্যন্ত প্রাধান্য দিচ্ছেন এবং তাকে সঙ্গে নিয়েই জীবনে এগিয়ে যেতে চাইছেন।

আরও পড়ুন- আপনার পার্টনার আপনাকে কতটা পছন্দ করে? জেনে নিন তার মনের সমস্ত কথা!