Beauty Tips : পুজোর আগে ত্বকের উজ্জ্বলতা ধরে রাখতে চাইলে শুধু খাবার হিসেবে (Vitamin E) নয়, মাখতেও হবে ভিটামিন ই

স্বাস্থ্যকর এবং উজ্জ্বল ত্বক পেতে চাইলে শুধু খাবারে নয়, রূপচর্চাতেও ব্যবহার করুন ভিটামিন - ই

0
172
Beauty Tips পুজোর আগে ত্বকের উজ্জ্বলতা ধরে রাখতে চাইলে শুধু খাবার হিসেবে (Vitamin E) নয়, মাখতেও হবে ভিটামিন ই

ইতিমধ্যেই উৎসবের মরসুম শুরু হয়ে গিয়েছে। স্বাভাবিকভাবেই সকল বয়সের মহিলারাই কম বেশি রূপচর্চায় মগ্ন হয়েছেন। কিভাবে কোনরকম বিশেষ অসুবিধা ছাড়াই ত্বকের যত্ন করা যেতে পারে এবং ত্বকের উজ্জ্বলতা ধরে রাখা যেতে পারে সেটাই হচ্ছে সবার প্রথম প্রশ্ন! অনেকেই হয়তো এই কারণে নানান রকমের বাজার চলতি ক্রিম ব্যবহার করে থাকেন যা, প্রথমদিকে বিশেষ কোনো প্রভাব না ফেললেও ধীরে ধীরে কিন্তু ত্বকের উপর একটা দীর্ঘস্থায়ী প্রভাব ফেলে এবং উজ্জ্বলতা হ্রাস পেয়ে যায়। তাই বাজার চলতি এই সমস্ত স্কিন কেয়ার প্রোডাক্ট গুলির বাইরে আজকে আমরা ভিটামিন ই ক্যাপসুল এর সম্পর্কে আলোচনা করতে চলেছি যা মানুষের শরীরে এবং ত্বকের যত্নে ভীষণভাবে কার্যকরী। ভিটামিন ই (Vitamin E) শরীরের নানা উপকার করে। বার্ধক্যের প্রভাব কমায়, হাড়ের যত্ন নেয়, বন্ধ্যত্বের সমস্যা রোধ করে। এর পাশাপাশি চুল এবং ত্বকেরও উপকার করে।

আমাদের মধ্যে কম বেশি এমন অনেকেই রয়েছেন যারা হয়তো ছোটবেলায় মাথার ত্বকের সংক্রমণ রুখতে ঈষদুষ্ণ তেলের মধ্যে ভিটামিন ই ক্যাপসুল ভেঙে মাথায় মাখতেন। তবে আপনারা কি জানেন ঠিক একই রকম ভাবে আমাদের মুখের বিভিন্ন সমস্যা যেমন ব্রণ অথবা দাগ ছোপ কমাতেও ঠিক এই ভিটামিন ই (Vitamin E) ক্যাপসুল সাহায্য করতে পারে। এই প্রসঙ্গে যাওয়ার আগে প্রথমেই জানিয়ে রাখি,চিকিৎসকেরা বলছেন, ভিটামিন ই-র (Vitamin E) অ্যান্টি-অক্সিড্যান্টই ত্বকের ব্রণের দাগ, মেচেতার দাগ দূর করতে, ক্ষত সারাতে কাজ করে। তবে অবশ্যই তার জন্য আপনাকে এর সঠিক ব্যবহার জেনে নিতে হবে। চলুন তাহলে দেরি না করে শুরু করা যাক এই প্রতিবেদন।।

১) ব্রণের দাগ দূর করতে ভিটামিন ই (Vitamin E) :

বর্তমানে এই ব্রণের সমস্যা কমবেশি সকল বয়সের মহিলাদের মধ্যেই লক্ষ্য করা যায়। এটি দূর করার জন্য আপনারা কিন্তু একটা সহজ টোটকা বাড়িতে বসেই কাজে লাগাতে পারেন যার ফল হবে সুদূরপ্রসারী।অ্যালো ভেরা জেলের সঙ্গে ভিটামিন ই (Vitamin E) জেল মিশিয়ে নিন। পুজোর আগে যে ক’টা দিন সময় আছে, রাতে শোয়ার আগে এই মিশ্রণ মুখে মেখে রাখুন। যদি কোন কারনে আপনার দাগ বা ক্ষত খুব গভীর হয়ে থাকে সেক্ষেত্রে কিন্তু সোজাসুজি ভিটামিন ই (Vitamin E) ক্যাপসুল ভেঙে সেই দাগের উপর লাগিয়ে রাখতে পারেন।। তবে শুধুমাত্র প্রভাবিত অঞ্চলে এটা লাগাবেন পুরো মুখের মধ্যে কিন্তু নয়।

২) চোখের তলার কালি দূর করতে ভিটামিন ই (Vitamin E):

আজকালকার প্রজন্মের অনেক রাত পর্যন্ত জেগে থাকাটা একটা সাধারণ অভ্যাসে পরিণত হয়ে দাঁড়িয়েছে। স্বাভাবিকভাবেই এই অভ্যাসের ফলস্বরূপ চোখের তলায় জন্মেছে গভীর কালির দাগ। পুজোর আগে চোখের তলার এই দাগ নিয়ে আপনিও কি চিন্তায় রয়েছেন? তাহলে আন্ডার আই ক্রীমের ভরসা ছেড়ে দিয়ে আপনিও একবার ট্রাই করে ফেলুন ভিটামিন ই (Vitamin E) ক্যাপসুল। রাতে শোয়ার আগে অ্যালো ভেরা জেলের সঙ্গে এই (Vitamin E) ক্যাপসুল মিশিয়ে চোখের তলায় মেখে রাখুন। দাগ দূর হবে সহজেই। চলুন যাওয়া যাক প্রতিবেদনের পরবর্তী অংশে।

৩) বলিরেখা প্রতিরোধে ভিটামিন ই (Vitamin E):

অনেকের ক্ষেত্রেই নানান ধরনের পারিপার্শ্বিক কারণের পরিপ্রেক্ষিতে ত্বকে বলিরেখার সমস্যা লক্ষ্য করা যায়। আপনারা চাইলেই কিন্তু এই অকাল বার্ধক্যের কারণে আসা বলিরেখাকে দূর করে ফেলতে পারেন। তার জন্য কি করনীয়? অ্যান্টি-অক্সিড্যান্টে ভরপুর ভিটামিন ই (Vitamin E) ত্বকের বলিরেখা দূর করতে এবং রক্ত সঞ্চালন স্বাভাবিক রাখতে সাহায্য করে। এর জন্য আপনারা সোজাসুজি নিয়মিত ভিটামিন ই (Vitamin E) ক্যাপসুল ত্বকে ব্যবহার করতে পারেন। চেষ্টা করবেন রাতে শোয়ার আগে ব্যবহার করার তাহলে বেশ অনেকখানি সময় আপনারা হাতে পেয়ে যাবেন।

Read More: Beauty Tips : ত্বকের বয়স কমাতে আজই ট্রাই করুন এই বিশেষ টোটকা, ফল মিলবে হাতেনাতে

৪) শুষ্ক ত্বকের যত্নে ভিটামিন ই (Vitamin E):

অনেকের ক্ষেত্রেই শুষ্ক ত্বকের সমস্যা অত্যন্ত বেশি রকমের লক্ষ্য করা যায় যার ফলস্বরূপ আমরা নিজেদের পছন্দ অনুযায়ী পোশাক পড়তে পারি না। এই ভিটামিন ই (Vitamin E) ক্যাপসুল এর সাহায্যে আপনারা কিন্তু এই শুষ্ক ত্বকের হাত থেকেও সহজে রক্ষা পেয়ে যাবেন। এক চা চামচ মধুর সঙ্গে দুই টেবিল চামচ দুধের সঙ্গে একটি ভিটমিন ই (Vitamin E) ক্যাপসুলের ভেঙে তার মধ্যে থাকা জেলটি মিশিয়ে নিন। কাজ থেকে ফিরে বা স্নানের মিনিট ১৫ আগে এই মিশ্রণ মুখে নিয়মিত মাখার চেষ্টা করুন। এরপর কিছুক্ষণ সময় বাদে ঠান্ডা জলে এটাকে ধুয়ে ফেলবেন। দেখবেন মাত্র সপ্তাহখানেকের মধ্যেই আপনারা ত্বকের অনেকটাই পরিবর্তন লক্ষ্য করতে পারবেন এবং এর জন্য কোন রকমের নামীদামি ক্রিম ব্যবহার করার প্রয়োজন পড়বে না।

৫) ওপেন পোর্সের সমস্যায় ভিটামিন ই (Vitamin E):

মহিলাদের স্কিনের ক্ষেত্রে এই সমস্যাটিও একটি অত্যন্ত সাধারণ সমস্যার যার ভুক্তভোগী হয়তো অনেকেই রয়েছেন। যদি আপনারাও দীর্ঘদিন চেষ্টা করার পরে কোন রকমের সমাধান পাচ্ছেন না সে ক্ষেত্রে আমাদের টোটকাটি একবার হলেও ট্রাই করে দেখুন পরিবর্তন আপনি নিশ্চিত বুঝতে পারবেন। গোলাপ জলের সঙ্গে দু’টি ভিটামিন ই (Vitamin E) ক্যাপসুল ভেঙে মিশিয়ে নিন। মাইল্ড ফেসওয়াশ দিয়ে মুখ ধুয়ে রাতে এই টোনার স্প্রে করে শুয়ে, ত্বকের ধরন অনুযায়ী ময়েশ্চারাইজ়ার মেখে শুয়ে পড়ুন। ব্যাস তাহলেই কয়েকদিনের মধ্যে আপনার ওপেন পোর্সের সমস্যা দূর হয়ে যাবে।

Read More: Beauty Tips : উজ্জ্বল এবং মসৃণ ত্বক পেতে চান, আজই ট্রাই করুন এই বিশেষ কয়েকটি খাবার, পরিবর্তন আসবে নিমেষেই