জিতুর সঙ্গে ডিভোর্স, তাও পুজোর শেষ মুহূর্তে ঘুরতে যাওয়ার জন্য প্রাক্তন স্বামীকেই বেছে নিলেন নবনীতা

0
110
জিতুর সঙ্গে ডিভোর্স, তাও পুজোর শেষ মুহূর্তে ঘুরতে যাওয়ার জন্য প্রাক্তন স্বামীকেই বেছে নিলেন নবনীতা
জিতুর সঙ্গে ডিভোর্স, তাও পুজোর শেষ মুহূর্তে ঘুরতে যাওয়ার জন্য প্রাক্তন স্বামীকেই বেছে নিলেন নবনীতা

বিগত বেশ কয়েক মাস ধরেই অভিনেতা জিতু কামাল এবং নবনীতা দাসের বিচ্ছেদের জল্পনা সকলকে অবাক করে রেখেছে। সব সময় একে অপরের পাশে থাকতেন যে দম্পতি,একে অপরকে দারুন ভাবে সাপোর্ট করতেন যে দম্পতি তারা যে এভাবেও আলাদা হয়ে যেতে পারেন তা যেন বহু মানুষ ভাবতেই পারছেন না। তবে মানুষ ভাবে এক আর হয় আরেক। জিতু আর নবনীতার ক্ষেত্রেও ব্যাপারটা অনেকটাই এরকম। দুর্গা পুজো বরাবর থেকেই একসঙ্গে কাটাতেন এই দম্পতি। তবে বিচ্ছেদের পর চলতি বছরের পুজোয় কোন রকমের বিশেষ ছবি শেয়ার করতে দেখা যায়নি দু তরফেই। তবে পুজোর শেষ লগ্নে এসে একটি ভিডিও শেয়ার করেছেন নবনীতা।যেখানে দেখা গেল বসে আছেন তিনি বর জিতুর স্কুটারের পিছনে। আলো ঝলমলে কলকাতার রাস্তায় ঘুরছেন। খুব সম্ভবত মাঝ রাত, তাই চারদিক একটু শুনশান। ভিডিও ভাইরাল হতেই অনেকেই ধরে নেন যে দুজনের সম্পর্ক আবারও আগের অবস্থায় ফিরে গিয়েছে। কিন্তু তারপরেই সকলের মোহভঙ্গ করে দেয় নবনীতার পোস্টের ক্যাপশন।

Read More: Bollywood : জাতীয় পুরস্কার পাওয়ার পরপরেই দারুন সমালোচিত হলেন অভিনেত্রী আলিয়া ভাট! কিন্তু আচমকাই দর্শকদের ক্ষোভের মুখে পড়ার কারণ কি?

ভিডিওর ক্যাপশনে নবনীতা জানিয়েছেন এটি গত বছরের ভিডিও। ভিডিওটি ভাইরাল হতেই বহু মানুষ নানান রকমের কমেন্ট করেছেন এতে।এভাবে ‘প্রাক্তন’-এর সঙ্গে কাটানো মুহূর্ত শেয়ার যে বিষাদেরই লক্ষণ, তা বুঝতে সময় লাগে না কারও। একজন কমেন্টে লিখলেন, ‘শুভ বিজয়াতে এই কামনা রইল যে, এই ছবি টা প্রতি বছর আসুক, শুধু গত বছর নয়। ভালো থেকো। একসঙ্গে থেকো তোমরা।’ অপরজন লিখলেন, ‘তোমরা দুজন চেষ্টা করলেই আবার সব ঠিক হয়ে যাবে আগের মতনই।’ তৃতীয়জনের মন্তব্য, ‘আর এই বছর কী হয়ে গেল’! যদিও এই সমস্ত মন্তব্যের কোন রকমের পাল্টা জবাব দেননি অভিনেত্রী।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Nabanita❤ (@nabanita.das)

তবে চলতি বছরের দুর্গা পুজো যে খুব একটা ভালো কাটেনি নবনীতার এই পোস্টের মাধ্যমে বোঝাই যাচ্ছে।পুজোর সপ্তাহখানেক আগে জিতু আর শ্বশুর-শাশুড়ির সঙ্গে ছবি দিয়ে তিনি লিখেছিলেন, ‘এবার পুজোটা তোমাদের সঙ্গে কাটানো হবে না।’ অভিনেত্রী নিজের মুখেই জানান,“এবার পুজোয় আমি কোথাউ যাইনি। পুজো পরিক্রমার কাজ দুটো আগে থেকে স্থির করা ছিল, তাই তখনই বেরিয়েছিলাম। আমি এবার মা দুর্গাকে বরণ করিনি। আমি সিঁদুরও খেলব না। জিতুর জন্যে কিন্তু কিছু নয়। আমি আসলে খুবই ক্লান্ত”। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য চলতি বছরের জুন মাস নাগাদ স্বামী জিতু কমলের সঙ্গে একটি সেলফি শেয়ার করে নবনীতা জানিয়েছিলেন, “আমরা দুজন দুজনের সাথে ভালো নেই…..প্রেম, বন্ধুত্ব, বিয়ে এইসব নিয়ে এক বর্ণময় অধ্যায় এর ইতিটা নয় এইভাবেই হোক… ভালো থেকো জিতু কমল”।

Read More: Bollywood : জাতীয় পুরস্কার পাওয়ার পরপরেই দারুন সমালোচিত হলেন অভিনেত্রী আলিয়া ভাট! কিন্তু আচমকাই দর্শকদের ক্ষোভের মুখে পড়ার কারণ কি?

প্রিয় এই তারকা দম্পতির বিচ্ছেদ দেখে চমকে গিয়েছিলেন অনেকেই। পাল্টা পোস্ট চোখে পড়েছিল জিতুর প্রোফাইলেও। তবে নানান রকমের আবেগ এবং স্মৃতির পরেও তাদের সম্পর্ক জোড়া লাগতে দেখা যায়নি। বরং দুজনেই বিভিন্ন সাক্ষাৎকারে জানিয়েছিলেন যে বেশ কয়েক মাস আগেই ডিভোর্স ফাইল করে দিয়েছিলেন তারা।২০১৯ সালের ৬ মে অগ্নিসাক্ষী রেখে নবনীতাকে বিয়ে করেছিলেন জিতু। আলাপ যদিও হয়েছিল ‘অর্ধাঙ্গিনী’ (২০১৮) ধারাবাহিকে কাজ করতে গিয়ে। সেইসময় নবনীতাই বিয়ের জন্য প্রপোজ করেছিল জিতুকে। পর্দার ঈশ্বরী-আয়ুশ প্রেম গড়ায় বাস্তবেও। যার পরিণতি বিয়ে। কিন্তু চার বছর যেতে না যেতেই ছন্দপতন। তবে কিছু সম্পর্ক শেষ হয়েও হয় না তার প্রমাণ নবনীতা নিজেই দিলেন এই ভিডিও শেয়ার করার মাধ্যমে।