মিউচুয়াল ফান্ডে এ বিনিয়োগ করতে চান? গত পাঁচ বছরে সবচেয়ে বেশি কারা রিটার্ন দিয়েছে দেখে নিন এক ঝলকে

Mutual Fund - মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ করতে আগ্রহী অথচ কোথায় কেমন রিটার্ন পাবেন বুঝতে পারছেন না? দেখে নিন আজকের এই প্রতিবেদন..

0
136
মিউচুয়াল ফান্ডে এ বিনিয়োগ করতে চান? গত পাঁচ বছরে সবচেয়ে বেশি কারা রিটার্ন দিয়েছে দেখে নিন এক ঝলকে
মিউচুয়াল ফান্ডে এ বিনিয়োগ করতে চান? গত পাঁচ বছরে সবচেয়ে বেশি কারা রিটার্ন দিয়েছে দেখে নিন এক ঝলকে

বর্তমান সময়ে দাঁড়িয়ে অনেকেই কিন্তু মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ করতে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। কিন্তু এই মিউচুয়াল ফান্ড ঠিক কিভাবে কাজ করে আর কোথায় বিনিয়োগ করলে সব থেকে ভালো রিটার্ন পাওয়া যায় এই সম্পর্কে অনেকের কাছে কোন স্পষ্ট ধারণা নেই। আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা তাই একটু বিশদে এই ব্যাপারে আলোচনা করতে চলেছি যাতে আগ্রহী পাঠকদের সুবিধা হয়।। তবে সেটি জানার জন্য আপনাদের আমাদের আজকের এই প্রতিবেদনটি শেষ পর্যন্ত পড়তে হবে। চলুন তাহলে শুরু করা যাক। আজ আমরা যে ধরনের মিউচুয়াল ফান্ডের কথা বলব সেগুলি রিটায়ারমেন্ট মিউচুয়াল ফান্ড সলিউশন ওরিয়েন্টেড ফান্ড অর্থাৎ অবসর জীবনের লক্ষ্য পূরণের জন্যই এই ফান্ড ডিজাইন করা হয়েছে। তাই একটি নির্দিষ্ট বয়সের মধ্যে কিন্তু আপনারা এই ফান্ডগুলোকে গ্রহণ করতে পারেন এবং নিজেদের অবসর সময় কে সুন্দর করে তুলতে পারেন।

মিউচুয়াল ফান্ডে এ বিনিয়োগ করতে চান? গত পাঁচ বছরে সবচেয়ে বেশি কারা রিটার্ন দিয়েছে দেখে নিন এক ঝলকে
মিউচুয়াল ফান্ডে এ বিনিয়োগ করতে চান?

এইচডিএফসি রিটায়ারমেন্ট সেভিংস ফান্ড:

২০১৬ সালে এই ফান্ড চালু করা হয়েছিল।এই ফান্ডের মোট এইউএম ৩৮০১.৬৮ কোটি টাকা। রেগুলার প্ল্যানে ১৯ শতাংশ বার্ষিক রিটার্ন এবং পাঁচ বছর মেয়াদের ডিরেক্ট প্ল্যানে ২০.৪৯ শতাংশ রিটার্ন দিয়েছে। ফান্ডের ব্যয় অনুপাত ১.৯৫ শতাংশের ক্যাটাগরি গড়ের বিপরীতে ১.৮৭ শতাংশ।পাঁচ বছর আগে ফান্ডের রেগুলার প্ল্যানে ১০ হাজার টাকা এসআইপি করলে আজ ১,০৬১,৬৫৪ টাকা হাতে আসত। নিঃসন্দেহে এটা গ্রাহকদের জন্য একটি আদর্শ প্ল্যান।

আরও পড়ুন- Investment : ন্যূনতম মূলধন দিয়ে বিনিয়োগ করতে চান? জেনে রাখুন এই কয়েকটি বিষয়

এইচডিএফসি রিটায়ারমেন্ট সেভিংস ফান্ড হাইব্রিড ইক্যুইটি প্ল্যান:

এই ফান্ডটিও ২০১৬ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে চালু করা হয়েছিল।বর্তমান এইউএম ১,১৫.০১ কোটি টাকা। রেগুলার প্ল্যানে ১৪.৫০ শতাংশ এবং ডিরেক্ট প্ল্যানে ১৫.৯৪ শতাংশ বার্ষিক রিটার্ন মিলেছে। এইচডিএফসি ব্যাঙ্ক, আইসিআইসিআই ব্যাঙ্ক, আরআইএল, এবং স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া হল ৬৬টি স্টকের একটি পোর্টফোলিওতে এর প্রধান স্টক।যদি এতে রেগুলার প্ল্যানে ১০ হাজার টাকার মাসিক এসআইপি করলে আজ ৯০৬,১৬২.৬ টাকা রিটার্ন পাওয়া যেত। আপনারা চাইলে এটিও দেখতে পারেন।

মিউচুয়াল ফান্ডে এ বিনিয়োগ করতে চান? গত পাঁচ বছরে সবচেয়ে বেশি কারা রিটার্ন দিয়েছে দেখে নিন এক ঝলকে
মিউচুয়াল ফান্ড

টাটা রিটায়ারমেন্ট সেভিংস প্রোগ্রেসিভ:

এই ফান্ড টি হাউজ অফ টাটা মিউচুয়াল ফান্ড ২০১১ সালে নভেম্বর মাস নাগাদ গ্রাহকদের জন্য নিয়ে এসেছিল। এই প্ল্যানে গ্রাহকেরা গত পাঁচ বছরে ১৩.২৮ শতাংশ বার্ষিক রিটার্ন পেয়েছেন।ডিরেক্ট প্ল্যানে বার্ষিক রিটার্নের পরিমাণ ১৫.০৯ শতাংশ। পাঁচ বছর আগে ফান্ডের রেগুলার প্ল্যানে প্রতি মাসে ১০ হাজার টাকার মাসিক এসআইপি করলে আজ তা ৮৫৪,৪৩৫.৯০ টাকা হাতে পাওয়া যেত। গ্রাহকদের কাছে এটাও কিন্তু বেশ আকর্ষণীয়।

নিপ্পন ইন্ডিয়া রিটায়ারমেন্ট ফান্ড ওয়েলথ ক্রিয়েশন স্কিম:

২০১৫ সালের ফেব্রুয়ারি মাস নাগাদ এই ফান্ড বাজারে এসেছিল। বেশ খানিকটা ঝুঁকি নিয়ে এটি গ্রাহকদের কাছে আসে। এতে পাঁচ বছরের রেগুলার প্ল্যান বার্ষিক ১১.২৫ শতাংশ এবং ডিরেক্ট প্ল্যান ১২.৩৯ শতাংশ রিটার্ন দিয়েছে। ৫৭ স্টকের পোর্টফোলিওতে ফান্ডের প্রধান স্টক হল, এইচডিএফসি ব্যাঙ্ক, আইসিআইসিআই ব্যাঙ্ক, রিয়ালেন্স ইত্যাদি।

আরও পড়ুন- SBI UPI Problem: এসবিআই-এর অ্যাকাউন্ট থেকে ফোনপে,গুগল পে চালাচ্ছেন? বন্ধ হতে পারে পরিষেবা! জেনে নিন বিশদে..

টাটা রিটায়ারমেন্ট সেভিংস মডারেট:

হাউজ অফ টাটা মিউচুয়াল ফান্ডের আরো একটি ফান্ডের কথা বলব যা আপনাদের কাছে কার্যকর।এই ফান্ড গত পাঁচ বছরে রেগুলার প্ল্যানে ১২.৩৪ শতাংশ এবং ডিরেক্ট প্ল্যানে ১৪ শতাংশ বার্ষিক রিটার্ন মিলেছে। এই প্ল্যানে ১০ হাজার টাকার মাসিক এসআইপি করলে আজ ৮৩৮,৬০৫.১২ টাকা গ্রাহকের হাতে থাকতো।