LIC এনে দিচ্ছে গ্রাহকদের জন্য দুর্দান্ত সুযোগ, মাত্র একবার টাকা জমা দিলেই প্রত্যেক মাসে পাবেন কয়েক হাজার টাকা!

বিনিয়োগ করার জন্য অনেকেই সুরক্ষিত প্লাটফর্ম হিসেবে এলআইসি কে বেছে নেন। সেই সমস্ত পাঠক বন্ধুদের জন্য আজকে আমরা বিশেষ একটি স্কিমের কথা বলব যেখানে একবার টাকা জমা দিলেই প্রত্যেক মাসে আপনারা কয়েক হাজার টাকা উপার্জন করতে পারবেন..

0
211
LIC এনে দিচ্ছে গ্রাহকদের জন্য দুর্দান্ত সুযোগ, মাত্র একবার টাকা জমা দিলেই প্রত্যেক মাসে পাবেন কয়েক হাজার টাকা!
LIC এনে দিচ্ছে গ্রাহকদের জন্য দুর্দান্ত সুযোগ, মাত্র একবার টাকা জমা দিলেই প্রত্যেক মাসে পাবেন কয়েক হাজার টাকা!

অর্থ উপার্জনের পাশাপাশি নিরাপদে অর্থ বিনিয়োগ করে লাভবান হওয়াটাও বর্তমান সময়ে মানুষের অত্যন্ত বেশি রকমের প্রয়োজন। তার জন্য বিভিন্ন সংস্থা বিভিন্ন রকমের স্কিম নিয়ে আসে। তবে সকল সংস্থার কাছে কিন্তু সুরক্ষিতভাবে বিনিয়োগ করা যায় না। তবে নিরাপদ বিনিয়োগের জন্য এলআইসি(LIC) যে একটি দুর্দান্ত প্লাটফর্ম তা হয়তো আপনাকে আলাদা করে বলে দিতে হবে না। আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা এলআইসির একটি বিশেষ স্কিমের কথা আলোচনা করব যা একবার টাকা জমা দিলে আপনাকে প্রত্যেক মাসে কয়েক হাজার টাকা রিটার্ন করবে। চলুন একটু বিশদে জেনে নেওয়া যাক।

এই বিখ্যাত স্কিমটির নাম হল এলআইসি সরল পেনশন যোজনা।যেখানে মাত্র একবার বিনিয়োগ করতে হবে এবং তারপরে প্রতি মাসে পেনশন হিসেবে হাজার হাজার টাকা পাবেন। এই স্কিমে কোনও ব্যক্তি 40 বছর বয়সের পরে পেনশন পাওয়া শুরু করতে পারেন। এই স্কিমের কি কি বৈশিষ্ট্য রয়েছে জানতে হলে নজর রাখুন প্রতিবেদনের পরবর্তী অংশে।

• এই স্কিমে বিনিয়োগকারীরা দু’টি অপশনে সুবিধা নিতে পারেন। একটি হল সিঙ্গেল লাইফ ও অপরটি হল জয়েন্ট লাইফ।

• সিঙ্গেল লাইফের ক্ষেত্রে পলিসি হোল্ডার তার সারা জীবন ধরে পেনশন পেতে থাকবেন। তাঁর মৃত্যুর পর নমিনিকে টাকা ফেরত দেওয়া হবে। অন্যদিকে, জয়েন্ট লাইফের ক্ষেত্রে পলিসিধারীর মৃত্যু হলে তার পত্নী পেনশনের সুবিধা পাবেন।

• এই স্কিমের জন্য সর্বনিম্ন বয়স 40 বছর এবং সর্বোচ্চ বয়স 80 বছর।

• এখানে বিনিয়োগের পরে পরেই বিনিয়োগকারী পেনশন পেতে শুরু করবেন। কোনও ব্যক্তি একা বা স্বামী বা স্ত্রী-র সঙ্গে এই স্কিম নিতে পারেন।

• এই স্কিমের জন্য ন্যূনতম মাসিক পেনশন হতে পারে 1000 টাকা। এর অর্থ হল, বছরে কমপক্ষে 12000 টাকা পেনশন পাবেন। এই স্কিম থেকে সর্বোচ্চ পেনশনের কোনও সীমা নেই।

আসুন সবশেষে পাঠক বন্ধুদের উদ্দেশ্যে একটা ধারণা তৈরি করা দেওয়া যাচ্ছে এই স্কিমে বিনিয়োগ করলে কি রকম ভাবে পেনশন পাওয়া যেতে পারে! কোনও ব্যক্তি কত টাকা পেনশন পেতে পারেন, তা নির্ভর করে বিনিয়োগকারীর বয়স ও কত টাকা একবারে বিনিয়োগ করা হচ্ছে তার উপরে। উদাহরণ দিয়ে বিষয়টি স্পষ্ট করা যেতে পারে। ধরুন কোন ব্যক্তির বয়স যদি 42 বছর হয় ,তিনি যদি 30 লাখ টাকা এককালীন বিনিয়োগ করেন, তাহলে তিনি প্রতি মাসে 12388 টাকা পেনশন পাবেন।। বিনিয়োগের পরিমাণ বাড়লে পেনশনের পরিমাণও কিন্তু বেড়ে যাবে।