লোন নিয়ে বাড়ি কেনা নাকি ভাড়া থাকা কোনটিতে বেশি লাভবান হবেন মানুষ? জানুন বিশদে

0
213
লোন নিয়ে বাড়ি কেনা নাকি ভাড়া থাকা কোনটিতে বেশি লাভবান হবেন মানুষ? জানুন বিশদে
লোন নিয়ে বাড়ি কেনা নাকি ভাড়া থাকা কোনটিতে বেশি লাভবান হবেন মানুষ? জানুন বিশদে

নিজেদের স্বপ্নের বাড়ি তৈরি করার লক্ষ্যে অনেকেই কিন্তু ব্যাংক থেকে বড়সড়ো অংকের অর্থ লোন নিয়ে নেন এবং তারপর মাসে মাসে ইএমআই মাধ্যমে সেটি শোধ করেন। আবার আমাদের দেশে বহু মানুষ রয়েছেন যারা কিন্তু দীর্ঘ সময় ধরে ভাড়া থাকেন এবং মাস গেলে সেই ভাড়ার টাকা গোনেন। স্বাভাবিকভাবেই এক ঝলকে আপনার মনে প্রশ্ন আসতে পারে যে এই দুটোর মধ্যে কোনটায় বেশি লাভ? সেই নিয়েই আজকের এই প্রতিবেদনে আমরা বিশদে আলোচনা করতে চলেছি। এই বিষয়ে জানতে গেলে আপনাদের প্রথমেই জেনে নিতে হবে বাড়ি কেনা এবং অন্যের বাড়িতে ভাড়া থাকার মধ্যে কি কি সুবিধা বা অসুবিধা রয়েছে।

বাড়ি কেনার কি কি সুবিধা রয়েছে?

বাড়ি কেনার কি কি সুবিধা রয়েছে?
বাড়ি কেনার কি কি সুবিধা রয়েছে?

8ইক্যুইটি বৃদ্ধি :

বাড়ির মালিকানা সময়ের সঙ্গে ইক্যুইটি তৈরি করে। এটি কিন্তু বেশ লাভজনক হতে পারে বাড়ির মালিকের জন্য সময় সময়ে।

7স্থিতিশীলতা এবং নিরাপত্তা :

একটি বাড়ির মালিকানা স্থিতিশীলতা প্রদান করে, ভাড়া বৃদ্ধি বা আকস্মিক স্থান পরিবর্তন সম্পর্কে উদ্বেগ দূর করে। সারা জীবনের জন্য একটি বাসস্থান পরিবার পরিজন এবং সন্তানের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করে এবং সমস্ত রকমের মানসিক ভাবনা দূর করে দেয়।

6ট্যাক্স সুবিধা :

সরকার হোম লোন পরিশোধের মূল এবং সুদের উপর কর ছাড় দেয়। করদাতাদের কাছে এটি বিশেষভাবে লাভজনক।

5দাম বৃদ্ধি :

জমি বা বাড়ি হলে এমন একটি জিনিস যার দাম সময় সময়ে বাড়তেই থাকে। আজ কোন জমির দাম ১ লক্ষ টাকা হলে ভবিষ্যতে কয়েক বছরের মধ্যেই কিন্তু তা ১০ লক্ষে পৌঁছে যেতে পারে। রিয়েল এস্টেটের যখন আপনি বিক্রি করার সিদ্ধান্ত নেন তখন অনেক টাকার লাভ পাওয়া যায়। আকস্মিক কোন দরকার অথবা প্রয়োজনে কিন্তু তাই আর চিন্তা করতে হয় না

4বাড়ি ভাড়ার কি কি সুবিধা রয়েছে?

যারা ভাবছেন ভাড়াবাড়িতে থাকলে প্রচুর অসুবিধা হতে পারে তাদের বলে রাখি যে এতেও কিন্তু রয়েছে বেশ কিছু সুবিধা। ব্যক্তিভেদে হয়তো তা অবশ্যই ভিন্ন হতে পারে।

3স্বল্প মেয়াদী ব্যবস্থা :

যারা কাজের কারণে ঘন ঘন স্থানান্তরিত হয় তাদের জন্য ভাড়া উপযুক্ত। এতে তাঁদের একাধিকবার বাড়ি কেনা বা বিক্রি করা সংক্রান্ত সমস্যা থেকে মুক্তি দেয়। নিশ্চিন্তে কাজের প্রয়োজন অনুযায়ী যে কোনও শহরে থাকা যায়। তবে যদি আপনি বাড়ি কিনে বা বানিয়ে থাকেন তাহলে কিন্তু এই সুবিধা উপভোগ করতে পারবেন না।

2প্রাথমিক খরচ সঞ্চয় :

বাড়ি ভাড়া নিলে সীমিত প্রাথমিক তহবিল প্রয়োজন হয়। ফলে আপনার এক সঙ্গে অনেক টাকার দরকার হয় না। যার ফলে যাদের কাছে টাকা কম রয়েছে, তাঁদের বিশেষ সুবিধা হয়।

1রক্ষনাবেক্ষনের সুবিধা :

নিজের বাড়ি হলে রক্ষনাবেক্ষনের জন্য প্রতি বছর অনেক টাকা খরচ হতে পারে। অপরদিকে, ভাড়া বাড়িতে থাকলে এই ধরণের কাজে টাকা খরচ হয় না।

অর্থাৎ বোঝাই যাচ্ছে যে বাড়ি কেনার যেমন সুবিধা রয়েছে ঠিক তেমনভাবেই ভাড়া বাড়িতে থাকার সুবিধাও কিন্তু কম নেই।। তবে এই গোটা ব্যাপারটাই নির্ভর করছে ব্যাক্তিভেদে পরিস্থিতির উপরে। আপনাকে অবশ্যই নিজের পরিস্থিতি অনুযায়ী উপায় বেছে নিতে হবে।