Shreya Ghoshal Look: লাল কাঞ্জিভরমে রীতিমত অনন্যা শ্রেয়া ঘোষাল, পঞ্চম বার জাতীয় পুরস্কার পেলেন গায়িকা!

Shreya Ghoshal Look: পঞ্চম বারের মতন জাতীয় পুরস্কার হাতে পেলেন শ্রেয়া ঘোষাল..তামিল ছবি 'ইরাভিন নিজহাল'-এর 'মায়াভা চায়াভা' গানের জন্য শ্রেষ্ঠ গায়িকা হিসেবে পুরস্কার পান তিনি। পুরস্কার হাতে পেয়ে এই সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করলেন ছবি..

0
164
Shreya Ghoshal Look: লাল কাঞ্জিভরমে রীতিমত অনন্যা শ্রেয়া ঘোষাল, পঞ্চম বার জাতীয় পুরস্কার পেলেন গায়িকা!
Shreya Ghoshal Look: লাল কাঞ্জিভরমে রীতিমত অনন্যা শ্রেয়া ঘোষাল, পঞ্চম বার জাতীয় পুরস্কার পেলেন গায়িকা!

চলতি বছরের আগস্ট মাসে জাতীয় পুরস্কার প্রাপকদের তালিকা ঘোষণা করা হয়েছিল। এই প্রাপকদের মধ্যে ছিলেন বলিউড থেকে শুরু করে সাউথ ইন্ডাস্ট্রির অন্যতম জনপ্রিয় ব্যক্তিবর্গরা। এই তালিকার নাম রয়েছে আলিয়া ভাট, কৃতি শ্যানন, আল্লু অর্জুন, এস এস রাজামৌলি, এম এম কিরাবাণী সহ আরো অনেকেরই।সম্প্রতি এদের মধ্যে সকলেই রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মুর হাত থেকে পুরস্কার গ্রহণ করতে উপস্থিত হয়েছিলেন। গত ১৭ ই অক্টোবর এক বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানের মাধ্যমে এই পুরস্কার বিতরণের সম্পূর্ণ প্রক্রিয়াটি সম্পূর্ণ হয়।। আর এই অনুষ্ঠানে পঞ্চম বারের মতন জাতীয় পুরস্কার নিজের হাতে তুলে নিয়েছেন জনপ্রিয় গায়িকা শ্রেয়া ঘোষাল। পুরস্কার পেয়ে আপ্লুত হয়ে পড়েছেন গায়িকা।

রাষ্ট্রপতির হাত থেকে পুরস্কার গ্রহণের একটি ভিডিয়ো ইনস্টাগ্রামের পাতায় শেয়ার করেছেন শ্রেয়া। জানিয়ে রাখি, তামিল ছবি ‘ইরাভিন নিজহাল’-এর ‘মায়াভা চায়াভা’ গানের জন্য শ্রেষ্ঠ গায়িকা হিসেবে পুরস্কার পান তিনি। ভিডিওটি শেয়ার করে ক্যাপশনে শ্রেয়া লিখেছেন, “ঈশ্বর আমার প্রতি সদয়। দ্রৌপদী মুর্মু জি আজ তুলে দিলেন জাতীয় পুরস্কার। এই সম্মানের জন্য কৃতজ্ঞ..”। তবে শ্রেয়া ঘোষালের জাতীয় পুরস্কার প্রাপ্তির তালিকাটি কিন্তু বেশ লম্বা। প্রসঙ্গত,২০০৩ সালে ‘দেবদাস’ ছবির ‘বৈরি পিয়া’ গানের জন্য প্রথম জাতীয় পুরস্কার পেয়েছিলেন শ্রেয়া ঘোষাল। এরপর ‘পহেলি’ ছবির ‘ধীরে জ্বলনা’ গানের জন্য ও ‘জব উই মেট’ ছবির ‘ইয়ে ইশক হায়ে’ গানের জন্য জাতীয় পুরস্কার পান তিনি। এরপর ২০১০ সালেও তিনি জাতীয় পুরস্কার পান, তবে একটি নয় দুটি গানের জন্য। মরাঠি ছবি ‘জোগভা’র গান ‘জিভ ডাংলা’র জন্য ও বাংলা ছবি ‘অন্তহীন’-এর ‘ফেরারি মন’ গানের জন্য জাতীয় পুরস্কার পান গায়িকা। ভিডিও ভাইরাল হতেই বহু মানুষ জনপ্রিয় এই গায়িকাকে নিজের মতো করে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।।

এদিনের পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের লাল রঙের কাঞ্জিভরমে ধরা দিয়েছিলেন শ্রেয়া ঘোষাল।শ্রেয়া একটি ম্যাচিং লাল-টোনড ব্লাউজের সঙ্গে শাড়িটি পরেছিলেন। সঙ্গে মানানসই কানের দুল এবং হালকা মেকআপে অপূর্ব সুন্দর লাগছিল গায়িকাকে।মাত্র ৪ বছর বয়স থেকেই গান শেখা শুরু করেন শ্রেয়া ঘোষাল। বাংলা এবং হিন্দির পাশাপাশি, অসমিয়া, ভোজপুরি, তামিল, তেলুগু, ওড়িয়া, গুজরাটি, কন্নড়, মরাঠী, মালায়লম, নেপালি ভাষায় গান গেয়ে ফেলেছেন তিনি। বিভিন্ন ভাষায় ইতিমধ্যেই কয়েক হাজার গান রেকর্ড করে ফেলেছেন তিনি।ছবির গানের পাশাপাশি শাস্ত্রীয় সঙ্গীতেও তুখোড় শ্রেয়া ঘোষাল। গজল, ক্লাসিকাল, পপ, ভজন এবং অন্যান্য বিভিন্ন ধরনের গান গেয়ে থাকেন তিনি।

মাত্র ১৬ বছর বয়সে তিনি জনপ্রিয় গানের শো সারেগামাপা জেতেন। তারপর কেরিয়ারের জন্য আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি তাঁকে।সারেগামাপা-র মঞ্চে দুর্দান্ত পারফরম্যান্সের জন্য তিনি বহু নামী পরিচালকের নজরে পড়ে যান। পরিচালক সঞ্জয়লীলা বনশালীর চোখে তাঁর প্রতিভা পড়ে। এবং তিনি তাঁর ‘দেবদাস’ ছবিতে শ্রেয়া ঘোষালকে প্রথমবার গান গাওয়ার সুযোগ দেন।২০১৫ সালে ছোটবেলার বন্ধু শিলাদিত্য মুখোপাধ্যায়ের সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন শ্রেয়া ঘোষাল। তিনি মা-ও হয়েছেন। সোশ্য়াল মিডিয়ায় সন্তান ও পরিবারের সঙ্গে প্রায়ই নানা ছবি শেয়ার করে থাকেন।