আর ঠকবেন না গ্রাহকেরা! এবার থেকে iPhone 15-এর রিটেল বক্স থেকেই জানতে পারবেন সেটি আসল না নকল

1
194
iPhone 15
iPhone 15

কোন বিশেষ জিনিসের জনপ্রিয়তা বেড়ে গেলে তখন কিন্তু সেই সমস্ত বিষয়ে নানান রকমের জালিয়াতি দেখা যায়।iPhone 15 ও কিন্তু তার ব্যাতিক্রম নয়। তবে এবার থেকে কিন্তু আর ক্রেতারা কোনোভাবেই এই সমস্ত জালিয়াতদের পাল্লায় পড়বেন না। কারণ হিসেবে জানা যাচ্ছে যে,Apple iPhone 15 সিরিজের বক্সে এমন এক সিকিউরিটি ফিচার রয়েছে, যাতে সহজেই ফোনটি আসল না নকল জানা যায়। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য প্রায় সপ্তাহখানেক আগেই ভারতীয় বাজারে লঞ্চ হয়েছে Apple iPhone 15 সিরিজ। ইতিমধ্যেই এই সিরিজটি বিক্রি করে ভারত থেকে বহু অর্থ উপার্জন করে ফেলেছে সংস্থাটি।

মানুষের মধ্যে iPhone 15 কেনার আগ্রহও অত্যন্ত বেশি।এদিকে লেটেস্ট iPhone 15 ফোনগুলিকে হাতিয়ার করে অনেক স্ক্যামার তাদের ফাঁদ পাতার শুরু করেছে। আসলে, প্রতিবার স্ক্যামাররা একটি নতুন আইফোনের ক্লোন তৈরি করে এবং সেটিকে আসল হিসেবে বিক্রি (কখনও কখনও কম দামে) করে। বিশেষত ই-কমার্স সাইটে এর ঝলক দেখা যায় অত্যন্ত বেশি রকমের। দেখতে এই সমস্ত ফোন গুলো নতুন আইফোনের মতই সুন্দর হয়ে থাকে। তবে কোয়ালিটি এবং ফিচার্সে থাকে ব্যাপক রকমের পার্থক্য। একজন ক্রেতা হিসেবে আপনার কেমন লাগবে যদি আসল আইফোনের মূল্যের টাকা দিয়ে আপনার হাতে এসে পরে একটি ভুয়ো আইফোন?

তাই অবশ্যই iPhone 15 এর এই নতুন মডেলটি কেনার আগে আপনাদের কিছু বিষয় জেনে রাখা প্রয়োজন । ক্রেতাদের সুবিধার কথা মাথায় রেখে Apple এই ধরনের জালিয়াতি এড়াতে কঠিন পদক্ষেপ নিয়েছে। সংস্থাটি জানিয়েছে,iPhone 15 সিরিজের বক্সে একটি ইন-বিল্ট সিকিউরিটি ফিচার রয়েছে, যার মাধ্যমে ক্রেতারা সহজেই ফোনটি আসল না নকল জানতে পারবেন।

কিভাবে কাজ করবে এই ফিচার?

গোটা বিশ্বজুড়েই iPhone 15 সিরিজের শিপিং শুরু হয়ে গিয়েছে। এরই মাঝে সোশ্যাল মিডিয়া সাইডগুলোতে একটা ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে। ভাইরাল সেই ভিডিও থেকে জানা যাচ্ছে,আইফোন ১৫ প্যাকেজের পিছনে, উপরে এবং নীচে হোলোগ্রামসহ একটি আল্ট্রা ভায়োলেট (UV) লাইট জ্বলতে দেখা যাচ্ছে। যখন আপনারা আইফোন কিনবেন তখন খুব সহজেই এর মাধ্যমে বুঝতে পারবেন যে মডেলটি আসল না নকল!! তাই এবার থেকে আর আপনাদের জালিয়াতদের পাল্লায় পড়ে ঠকে যাওয়ার জন্য কোন রকমের চিন্তা করতে হবে না।। নিশ্চিন্তে আপনারা ফোন কেনার জন্য এগিয়ে যেতে পারেন।

আর কিভাবে চেক করতে পারবেন iphone 15 এর আসল হওয়ার তথ্য?

অ্যাপল কোম্পানির দেওয়া উপরিউক্ত ফিচারটি ছাড়াও, আরো অনেক রকম ভাবেই মডেলটির আসল বা নকলের তথ্য যাচাই করা যেতে পারে। তার জন্য ক্রেতাদের অ্যাপলের কভারেজ ওয়েবসাইট বা থার্ড পার্টি সাইটে যেতে হবে এবং সিরিয়াল নম্বর পরীক্ষা করতে হবে। এই নম্বরটি আপনারা ফোনের সেটিং এপ্লিকেশনের মধ্যেই পেয়ে যাবেন।

জানিয়ে রাখি যদি আপনি আগে থেকেই একজন আইফোন ব্যবহারকারী হয়ে থাকেন, সে ক্ষেত্রে নিজের অ্যাপল আইডিতে লগইন করে ফেলুন। যদি আপনার নতুন কেনা আইফোনটি ভুয়ো অর্থাৎ অ্যান্ড্রয়েড ভিত্তিক ক্লোন হয়ে থাকে তাহলে কিন্তু আপনি নিজের আইডিতে লগইন করতে পারবেন না। আর এই বিষয় থেকেই প্রমাণ হয়ে যাবে আপনার কেনা iphone আসল না নকল! তাহলে এবার থেকে সমস্ত দিক বিবেচনা করার পরেই আইফোন কেনার কথা ভাবুন। নয়তো একটি বড় মূল্যের আর্থিক ক্ষতির মুখোমুখি হতে পারেন আপনিও।