শাড়ি পরলেই মোটা দেখায়? কোন ৭ কায়দা মেনে চললে শাড়িতেও দেখাবে তন্বী! জানুন বিশদে

আপনিও কি একজন শাড়ি প্রেমী মহিলা? তবে শাড়ি পরলেই মোটা দেখানোর কারণে এড়িয়ে চলেন? তাহলে এবার সময় হয়ে এসেছে সেই সমস্যার সমাধানের..

0
195
শাড়ি পরলেই মোটা দেখায়? কোন ৭ কায়দা মেনে চললে শাড়িতেও দেখাবে তন্বী! জানুন বিশদে
শাড়ি পরলেই মোটা দেখায়? কোন ৭ কায়দা মেনে চললে শাড়িতেও দেখাবে তন্বী! জানুন বিশদে

বহু মানুষ এমন রয়েছেন যাদের শাড়ি পরলে বেশ খানিকটা মোটা দেখায়। খুব রোগা চেহারার ব্যক্তিদের ক্ষেত্রেও কিন্তু একই কথা প্রযোজ্য হয়ে থাকে। আসলে কিছু কিছু শাড়ির কাপড় এরকম ধরনের হয়ে যা শরীরে পরলেই ফুলে থাকে। যার ফলস্বরূপ অত্যন্ত রোগা মানুষ কেও কিন্তু অনেক সময় শাড়িতে ব্যাপক রকমের মোটা বলে মনে হয়। আপনাদের মধ্যে কম বেশি অনেকেই হয়তো এই ধরনের সমস্যার মুখোমুখি হয়েছেন শাড়ি পরতে গিয়ে। তবে আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনটি ফলো করলে কিন্তু আপনাকে আর কোন চিন্তার মুখোমুখি হতে হবে না। কোন শাড়িতেই কিভাবে নিজের তন্বী লুক ধরে রাখতে পারবেন সে নিয়েই আজকের এই প্রতিবেদনে আমরা বিশদে আলোচনা করতে চলেছি।

শাড়ি পড়ার সময় আপনাকে অবশ্যই বিশেষ কয়েকটি বিষয় মাথায় রাখতে হবে। এই বিষয়গুলো যদি সঠিকভাবে আপনারা মাথায় রাখতে পারেন তাহলে কিন্তু কখনোই শাড়ি পড়লে আপনাদের মোটা বলে মনে হবে না। বরং বলিউডের হিরোইনদের মতোই আপনার তন্বী চেহারা যেন আরো বেশি করে ফুটে উঠবে।

১) সব ষসময় যে কোন অনুষ্ঠানের জন্যই গাঢ় রঙের শাড়ি বাছুন। প্যাস্টেল শেড এখন ফ্যাশনে ‘ইন’ হলেও যদি রোগা দেখাতে হয়, তা হলে কিন্তু কালো, মেরুন, গাঢ় নীলের মতো শেড বাছাই করুন। এই ধরনের রংগুলো কিন্তু রোগা দেখানোর জন্য দারুন ভাবে কার্যকরী হয়ে থাকে। বিশ্বাস না হলে ট্রাই করেই দেখুন।

২) মোটা বা রোগা দেখানোর ক্ষেত্রে শাড়ির প্যাটার্ন ও কিন্তু কার্যকরী ভূমিকা পালন করে।আড়াআড়ি প্যাটার্নের শাড়ি পরলে চেহারা ভারী দেখায়। তাই এবার থেকে অবশ্যই নিজের বিশেষ দিনগুলোতে শাড়ি বেছে নেওয়ার আগে চেষ্টা করুন লম্বালম্বি প্যাটার্ন বা ডিজিটাল প্রিন্টের শাড়ি পরার। তাহলে অনেকটাই সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে।

Read More: Bollywood : জুতো খুলে মা দুর্গার সামনে মাথা নত করলেন ক্যাটরিনা কাইফ, সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবি ভাইরাল হতেই প্রশংসায় পঞ্চমুখ নেটিজেনরা!

৩) অনেকেই আছেন যারা শাড়ির মধ্যে খুব জমকালো কাজ বা কারুকার্য পছন্দ করেন। তাদের উদ্দেশ্যে বলবো এই ব্যাপারটি একেবারেই এড়িয়ে চলার চেষ্টা করুন।চওড়া পাড়ের শাড়ি নয়, সরু বর্ডারের শাড়ি বাছাই করুন নিজের জন্য। শাড়ি উঁচু করে পরুন।

৪) শাড়ির সঙ্গে অবশ্যই হাই হিল জুতো পড়ার চেষ্টা করবেন। এতে অনেকটাই লম্বা এবং রোগা দেখায়। যে সমস্ত মহিলাদের উচ্চতা কম তাদেরও কিন্তু এতে সুবিধা হবে আর দেখতেও ভালো লাগবে।

৫) যাদের ডিজাইনার ব্লাউজ পড়তে আপত্তি নেই তারা কিন্তু সর্বদা ব্যাকলেস অথবা ডিপনেক ব্লাউজ শাড়ির সঙ্গে ট্রাই করবেন। কারণ এই ধরনের ব্লাউজ গুলোতে মহিলাদের ত্বক অনেকটাই উন্মুক্ত থাকে যার ফলস্বরূপ খুব একটা মোটা বলে মনে হয় না। এই ধরনের ব্লাউজ কিন্তু এখন ট্রেন্ডিংয়ে রয়েছে তাই কোন চিন্তা নেই। নিশ্চিন্তে আপনারা যে কোন অনুষ্ঠানে ক্যারি করতে পারেন।

৬) আগেকার দিনে সাধারনত শাড়ির সঙ্গে মোটা কাপড়ের সায়া ব্যবহার করতেন সাধারণ মহিলারা।শাড়ির সঙ্গে মোটা কাপড়ের শায়া পরলে ফোলা ফোলা দেখায়। এই সমস্যা এড়াতে শেপওয়ার দিয়ে শাড়ি পরতে পারেন। অনলাইন বা অফলাইন প্লাটফর্মে খুব সহজেই আপনারা এই শেপ ওয়ার পেয়ে যাবেন। নিজের শাড়ির সঙ্গে ম্যাচিং করে কিনে ট্রাই করে ফেলুন। এছাড়াও আজকাল বিভিন্ন বডি হাগিং সায়া পাওয়া যায় সেগুলোও কাজে লাগাতে পারেন।।

৭) প্লাস সাইজের মহিলাদের কাটা হাতা বা ছোট হাতা দিয়ে ব্লাউজ পরা এড়িয়ে চলা উচিত। এতে তাদের মোটা দেখায়। কোয়ার্টার বা ফুল হাতা ব্লাউজ পরার বদলে ব্লাউজের দৈর্ঘ্যও বেশি রাখতে হবে।