লিপস্টিক পরার কিছুক্ষণ পরেই তা উঠে যায়? দীর্ঘস্থায়ী করতে অবশ্যই কাজে লাগান এই বিশেষ কয়েকটি টিপস..

মহিলাদের সাজসজ্জার একটি গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ হলো লিপস্টিক.. কিন্তু অনেক ক্ষেত্রেই কিছুক্ষণ পরপর লিপস্টিক কিন্তু উঠে যায়! এই সমস্যার ভুক্তভোগী হলে ট্রাই করে দেখুন নিম্নলিখিত কয়েকটি টিপস..

0
182
লিপস্টিক পরার কিছুক্ষণ পরেই তা উঠে যায়? দীর্ঘস্থায়ী করতে অবশ্যই কাজে লাগান এই বিশেষ কয়েকটি টিপস..
লিপস্টিক পরার কিছুক্ষণ পরেই তা উঠে যায়? দীর্ঘস্থায়ী করতে অবশ্যই কাজে লাগান এই বিশেষ কয়েকটি টিপস..

আপনিও কি কোথাও বেরোলে লিপস্টিক পড়তে খুব ভালোবাসেন? আপনার কালেকশনেও কি রয়েছে এক বা একাধিক অসাধারণ কম্বিনেশনের লিপস্টিক? অথচ ঠোঁটে লাগানোর কিছুক্ষণের মধ্যেই তা উঠতে শুরু করে? তবে আজকের এই প্রতিবেদনটি ভুলেও মিস করবেন না. প্রসঙ্গত লং লাস্টিং বলা হলেও কিন্তু বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই দেখা যায় লিপস্টিক লাগানোর কিছুক্ষণের মধ্যেই তা উঠতে শুরু করে দিয়েছে। এবার বড় কোন অকেশন হোক বা সাধারণ কোন জায়গা বারবার তো আর লিপস্টিক ব্যাগ থেকে বের করে লাগানো সম্ভব নয়! তাই অবশ্যই আপনাদের কিছু বিকল্প উপায় বের করতে হবে, যাতে দীর্ঘসময়ের জন্য লিপস্টিক ঠোঁটে থাকে এবং কোনরকম ভাবেই তা উঠে না যায়।

ইতিমধ্যেই পুজোর মরশুম শুরু হয়ে গিয়েছে.. বহু মন্ডপেই চলে এসেছে প্রতিমা, মহালয়ার পর থেকে অনেকেই কিন্তু সময় বের করে ঠাকুর দেখাও শুরু করে দিয়েছেন। স্বাভাবিকভাবেই পূজোর এই মরসুমে যদি সাজসজ্জায় কোন ত্রুটি থেকে যায় তাহলে তো মন খারাপ হবেই। অনেকেই আজকাল নামিদামি কোম্পানির বা ব্র্যান্ডের লিপস্টিক ব্যবহার করে থাকেন। তবে তাতেও কিন্তু এই সমস্যা থেকে খুব একটা রেহাই পাওয়া যায়নি। চলুন তাহলে এবার একটু টিপস গুলো জানা যাক।

লিপস্টিক পরার কিছুক্ষণ পরেই তা উঠে যায়? দীর্ঘস্থায়ী করতে অবশ্যই কাজে লাগান এই বিশেষ কয়েকটি টিপস..
কিভাবে লিপস্টিক লাগালে তা ঠোঁটে অনেকক্ষণ স্থায়ী থাকে

আরও পড়ুন- আপনিও কি প্রতিনিয়ত বিয়ের স্বপ্ন দেখছেন? জেনে নিন এটা শুভ না অশুভ ইঙ্গিত!

  1. লিপস্টিক লাগানোর আগে আপনাকে প্রথমেই কিন্তু ঠোঁটের শুষ্ক ভাব দূর করে নিতে হবে। এই কাজটি করার জন্য চিনি আর নারকেল তেল দিয়ে ঠোঁট হালকা মালিশ করে নিন। এরপর লিপজেল লাগিয়ে নিন। চলে যাবে খসখসে ভাব। এছাড়াও আপনারা কিন্তু মৃত ত্বক ঠোটের উপর থেকে সরিয়ে ফেলার জন্য স্ক্রাব ব্যবহার করতে পারেন। বাড়িতে খুব সহজেই গোলাপজল, মধু এবং চিনি দিয়ে বাড়িতেই বানিয়ে ফেলতে পারেন লিপ স্ক্রাব। ভালো করে এই মিশ্রণটি দিয়ে ঘষে নিয়ে জল দিয়ে ধুয়ে ফেলবেন।
  2. ঠোঁটের জন্য আলাদা ধরনের প্রাইমার পাওয়া যায়। যদি আপনারা এই প্রাইমার লাগান তাহলে কিন্তু লিপস্টিক দীর্ঘস্থায়ী হবে মেকাপের মতোই। প্রাইমার লাগানোর পর খুব সামান্য ফাউন্ডেশন ঘষে নিতে পারেন ঠোঁটের উপরে। এতে লিপস্টিক দীর্ঘস্থায়ী হওয়ার সুবিধে আরও কয়েক গুণ বেড়ে যাবে।
  3. এবার চলে আসা যাক একেবারে সর্বশেষ ধাপে.. এই ক্ষেত্রে প্রথমেই যে কালারের আপনারা লিপস্টিক পড়ছেন তার সঙ্গে ম্যাচিং করে লিপ লাইনার ভালো করে ঠোটের চারপাশে লাগিয়ে নেবেন।
  4. অনেকেই রয়েছেন যারা কিন্তু শুধুমাত্র চার কোনাতেই লিপ লাইনার ইউজ করেন, এই ভুলটা কিন্তু করবেন না। আপনার ঠোঁটের ভেতরের অংশটাও এই লাইনার দিয়ে ভরাট করে নিন।
  5. ব্যাস এবার সব শেষে নিজের পছন্দ সেই রংয়ের লিপস্টিক পড়ে নিয়ে তার উপর একটু টিস্যু পেপার দিয়ে হালকা করে চাপ দিতে হবে। টিস্যু পেপার এর উপর থেকেই খুব সামান্য পাউডার দিয়ে দিন। দেখবেন ম্যাট ফিনিশিং চলে আসবে এবং লিপস্টিক হয়ে যাবে একেবারে দীর্ঘ সময়ের জন্য।

আরও পড়ুন- Breast cancer: ব্রেস্ট ক্যান্সার বা স্তন ক্যান্সার, কী লক্ষণ দেখে বোঝা যাবে? কীভাবে সাবধান হবেন